দুই ফুল

কটি গাছের ওপরের কান্ডে গজানো ফুলের সাথে সবচে নিচের কাণ্ডে গজানো ফুলের কথোপকথন :

উপরতলার ফুল : আমি সবচে সুন্দর ফুল,কেন জানো ?আমি গাছের সবচে ওপরের ডালে আছি।আমি ওপর থেকে পুরো কলকাতা শহর দেখি।আমার চারিপাশে বিশুদ্ধ তাজা বাতাস।আসলে আমার বাবা মা ওই বাজে মাটি তে জন্ম নিলে কি হবে,আমি ভাগ্যবান তাইতো আজ ওই অশুদ্ধ মাটি থেকে উঠে আসতে পেরেছি।
নিচের তলার ফুল :কিন্তু আমি তো মা বাবার খুব কাছে আছি।এই যে শিকড় যেখান থেকে তোর আমার দুজনের ই জন্ম,তার কত কাছে আমি। জানিস তো বোন,আমি বাবা মার ছায়ার মধ্যে থাকি,এর চেয়ে বড় সুখ কি আর আছে ?
 
উপরতলার ফুল :কিন্তু বোন তুই শুধু একতলা বাড়ি আর মাঠ ঘাট দেখতে পাস,আমি এখান থেকে সব দেখতে পাই,বিশাল বড় প্রাসাদ,সূর্যোদয়,সূর্যাস্ত। আমি তো রাজা রে।
নিচের তলার ফুল :তা অবশ্য পাস । কিন্তু দেখিস বোন,সাবধানে থাকিস। বাবা মা আর আমরা তোর থেকে অনেক দূরে আছি। নিজে নিজের যত্ন নিস । তোর পাশ দিয়ে যে পাখিগুলো উড়ে যায় তাদের একটু দেখভাল করিস ।বলা তো যায় না কার কাকে কখন দরকার পড়ে  ।
উপরতলার ফুল : তুই চিন্তা করিস না । আমি রাজাই থাকবো । তোর সাথে ও কথা বলে আনন্দ পাই না,তুই সেই সেকেলে ই রয়ে গেলি ।
দীর্ঘদিন দুই বোনের কোনো বাক্যালাপ নেই ।তারপর একদিন :
উপরতলার ফুল : দিদি আমাকে বাঁচা । আমি আর এখানে থাকতে পারছি না। এবছর সূর্যের তেজে আমি পুড়ে যাচ্ছি।আমার একটা পাপড়ি ইতিমধ্যেই মাটিতে পড়ে গেছে । দিদি, খুব কষ্ট হচ্ছে রে ।আর বেশিদিন থাকবো না ।
নিচের তলার ফুল :দেখ,বোন তোকে আমি সাবধান করেছিলাম। পরোক্ষভাবে তোকে বুঝিয়েছিলাম যে মাটিতে আমার বাবা মা এর জন্ম, সেই মাটি কে তাচ্ছিল্য করিস না । কিন্তু তুই শুনিস নি,তুই দীর্ঘদিন আমাদের সাথে কোনো যোগাযোগ রাখিস নি ।আজ তুই বিপদে পড়েছিস ,
আর সেই তোকে আমাদের বাজে মাটিতেই শেষে মিশতে হচ্ছে । কিন্তু তুই বুঝতে বড্ডো দেরি করে ফেলেছিস । আজ আমার কিছু করার নেই ।

উপরতলার ফুল :ঠিক বলেছিস দিদি, এটা আমার সবচে বড়ো ভুল । আজ আমি বুঝতে পেরেছি, আমাদের শিকড় কে কখনো তাচ্ছিল্য করা উচিত না, মাটি যতই বাজে হোক না কেন ।

 
(Lessons : Home is sweet home. Nobody should ignore their Home,Parents because these are the roots of our success.It may happen that your home is very old,parents are old and for this reason,home may not offer you glamour and parents may not help you in your daily work, still you should respect your roots i.e PARENTS.)

মেঘ -বৃষ্টি

এইবছর যাই বলো ,মেঘটা খেলছে ভালো,
লুকোচুরির খেলায় মেঘটাই জিতলো।
বৃষ্টি টার কি হয়েছে কি জানি ,শুধু হারছে,
মেয়ে বলেই কি মেঘ কে জিতিয়ে দিচ্ছে ?
আকাশ টা মা হয়ে কি ভাবছে ?
তাহলে শুধুই কি মেঘ কে ভালোবাসছে ?
মা রা কি ছেলেদের কে বেশি ভালোবাসে ?
বৃষ্টি টা বড্ডো কাঁদে অনায়াসে।
এই বৃষ্টি কেঁদে আর  কি করবি  ?
এবার থেকে তুই ই শুধু জিতবি।
বড্ডো ঝগড়া করিস ভাই বোনে,
দুজনেই আসতে পারিস  না সমানে সমানে ?

আজ, বৃষ্টির সাথে 

আজ দিনটা লাগছে বেশ ভালো,
ঘরে নেই তেমন কোনো আলো ,
আমি আছি একা ,সাথে বৃষ্টি এক পশলা,
জানালা টা সকাল থেকেই যে খোলা।
আজ দিনটা সত্যিই লাগছে বেশ,
আজ নেই কারো সাথে কোনো রেশ।
আজ আমি উন্মুক্ত একদম বাঁধন ছাড়া,
আজ আমার কোথাও যেতে নেই কোনো মানা।
জানলা দিয়ে লাগছে বেশ আমার প্রকৃতি কে,
খেজুর গাছের পাতাগুলো জানালার কাঁচগুলো কে,
বৃষ্টি দিয়ে ভিজিয়ে দিচ্ছে বারে বারে;
ইচ্ছে করছে কাঁচের জায়গায় আমি ই থাকি পাতার আদর খেতে।
সন্ধ্যে হলেই বাড়ি যাবো,
আবার তখন বন্ধনে জড়াবো,
আবার আমার পরিবারে বন্দি হবো,
এমনি করেই একবার বন্ধন ছাড়া একবার বন্দি রবো।

ইচ্ছে 

ইচ্ছেগুলো মনের কোনে থেকে মনকে খোঁচা মারলে ভালো,
ইচ্ছেগুলো পূরণ না হলেই  সব হয় এলোমেলো।
ইচ্ছেগুলো আকাশকুসুম হলে পূর্ণ হলে ,খুব ভালো লাগে,
ব্যর্থ হলেই বেঁচে থাকার ইচ্ছেটাও থাকে না আর মনে।
ইচ্ছে পূরণ না হলে বদলে ফেলো ইচ্ছে কে,
 আঁকড়ে আর কদিন ই বাঁচবে সাথে নিয়ে সেই জেদ কে।
তুমিও দেখিয়ে দাও অনেক রাস্তা তোমার খোলা,
অনেক রাস্তায় – তোমারি জন্য জ্বলছে কত আলো।
ইচ্ছে পূরণ না হলে আত্মহত্যা করাটা বোকামো,
ইচ্ছের কাছে নিজেকে সপেঁ দেওয়াটা মুর্খামো।
একটা ইচ্ছে পূর্ণ না হলে বসে থাকো পরের বছরের জন্য,
কিংবা বদলে ফেলো ইচ্ছেটাকে নিজের জীবনের জন্য।

স্বপ্ন

 
অনেকগুলো স্বপ্ন পূরণ করে কিছু স্বপ্ন ব্যার্থ হয়ে,
আরো কিছু নতুন স্বপ্ন কে পূরণ করার উদ্দেশ্যে,
এখনো আমি হেঁটে চলেছি স্বপ্নের সাথে ,স্বপ্ন কে ভালোবেসে;
আর স্বপ্ন দেখি স্বপ্ন পূরণ করে রওনা দেব কবে বিদেশে।
স্বপ্ন ছিল ভালোবাসায় ভরিয়ে দেব আমার বোন কে,
কিন্তু সময় কাটাতাম না একটুও তার সাথে।
ভুলটা এখন বুঝতে পেরে ভুলের প্রায়শ্চিত্ব করে,
উপায় নেই সময় কাটাবো তার সাথে নতুন করে।
এখন সে যে অতীত ,তাকে কি করে ফেরায়,
তার আর আমার মাঝে শুধুই দেওয়াল।
এই ভুল থেকে শিখলাম -স্বপ্ন শুধুই দেখতে নেই,
স্বপ্ন দেখলে তার পিছু ছাড়তে নেই।
এমনেই এক স্বপ্নের মুখে আমি,যাকে দিই না সময়,
সবার আগে ভরিয়ে দিতে হবে তাকে ভালোবাসায়,
কিন্তু সেই জটিল তত্ব ফর্মুলা কিছুই যে ঢোকে না মগজে,
তবুও পিএইচডি টা কমপ্লিট করতেই হবে যে আমাকে।
জানি না কিভাবে  কোন পথে হাটবো আমি,
যখনই তাকে  নিয়ে বসি আমি ,
আঁখি শুধু ছলছল,শুধু   বলতে থাকি পার করে দাও ভগবান,
দেখাও পথ ,পূরণ করে দাও আমার স্বপন।