কবিতার শব্দগুলো

গভীর রাত্রের কালো অন্ধকারে, ঠিক বিশ্রাম নেওয়ার আগে বিছানাতে, তোমরা শুধু উঁকিঝুঁকি মারো আমার ঠোঁটের গোড়াতে। অস্থির হয়ে ওঠে আমার মন। বিচলিত হয়ে যাই আমি কিছুক্ষণ। শুধু একটা নয়,হাজার টা কবিতার শব্দগুলো এর চঞ্চলতায় জেগে ওঠে ঘুমিয়ে থাকা পাঁজরাগুলো। চোখ দুটো বিরক্তিতে চেয়ে থাকে, শুধুই আমার মনের দিকে। নীরব আমি,ভালোবাসি কবিতাগুলোকে। তাই উত্তর দিতে পারি… Read More

ভালো লাগে

ভালো লাগে নীরবে নিভৃতে, একান্তে তোমার কথা ভাবতে। ভালো লাগে তোমার কথা ভাবতে ভাবতে, খোলা ছাদে দাঁড়িয়ে বৃষ্টিতে ভিজতে। ভালো লাগে নিশীথের নক্ষত্রখচিত আকাশে, পূর্ণিমার আলোকে মধুর বাতাসে, তোমাকে ঘিরে অসংখ্য স্বপ্ন বুনতে। ভালো লাগে তুমি কবে আসছো সেই অপেক্ষায় থেকে, চাতক পাখির মতো মুখ হাঁ করে থাকতে, আর হাঁ করে স্বপ্নে তোমায় ভালোবাসতে।

চলে যাবো

চলে যাবো দূরে বহু দূরে, পাহাড়ের চূড়ায় নির্জনে নিভৃতে।  কিন্তু পাহাড় যদি ফেলে দেয়  নিচের গভীর খাদে ! তবুও চলে যাবো দূরে বহু দূরে, মিশে যাবো বাতাসের সাথে।  কিন্তু বাতাস যদি দেয় উড়িয়ে – আছড়ে ফেলে দেয় মাটিতে ! তবুও চলে যাবো দূরে বহু দূরে,   গা ঢাকা নেবো মেঘেদের মাঝে।  কিন্তু মেঘ ভেঙ্গে যদি বৃষ্টি… Read More

চুপকথা

মন আজ ডানা মেলেছে, সব চুপকথা আজ উড়ে গেছে। মন জানে নিজেকে হালকা করতে, জানে নিজেকে নানান কাজে ব্যস্ত রাখতে। চুপকথাগুলো কি জানি নানান দিকে নানান ভাবে উড়তে উড়তে – পৌঁছে গিয়েছে নানান লোকের মনের গভীরে, আর সেখানে ভীড় জমতে জমতে- উঠে এসেছে অনীহা,বিতৃষ্ণা, যেগুলো এক নিমেষেই পৌঁছে যেতেই পারে মনের কাছে ,বাড়িয়ে দিতে পারে… Read More

ছোট্ট মেয়ে

বাড়ীর বড্ডো আদুরে মেয়ে। বাবা মা তার মুখ চেয়ে – ভাবতো শুধু – মেয়ে কখন চাকুরী টা পাবে ! চিন্তাগুলো কিছুটা হলেও দূর হবে। বয়স এখন পনেরো ,তবু হলো না এখনো বড়ো, অন্ধকারে এখনো ভয়ে জড়োসড়ো ! কি জানি বিয়ের পর কেমন হবে শশুরবাড়ি ! চাকরি করা মেয়ে ,কেমন চোখে দেখবে তারা কি জানি ?… Read More

জীবনকথা

সবার জীবনই ছোট্ট বড় গল্প। সব্বাই যদি লিখে অল্প অল্প, হবে নানা রকমের উপন্যাস। সব মিলে বিশাল এক ইতিহাস। তোমার দুঃখ – আমার সুখ, আমার সুখ – তোমার দুখ, সব কিছু হয় যদি জানাজানি, কষ্ট কমবে একটুখানি। দেখতে পাবে সব্বাই গাঁথা আছে- সুখ দুঃখের মাঝে। শুধুই তফাৎ সেইখানেতে, তোমার সকাল আমার সাঁঝবেলাতে। আরো একটা মস্ত… Read More

বাবা

আমি শুধু না -গোটা গ্রামবাসী বলে পুরো গ্রাম মাঝে তুমি হীরে হয়ে কি করে জন্মালে ! ছোট্ট তুমি ,বয়স তোমার সবে পাঁচ – ধ্বসে পড়লো তোমার আনাচ কানাচ।  তুমি হারালে তোমার বাবা কে ওই টুকু বয়সে ! দৃঢ় চিত্তে নিজের মা কে আগলে রাখলে কত অনায়াসে। তখন থেকে ঠাম্মা শুধু তোমায় আঁকড়ে বাঁচে।  ভাগ্য হয়তো ছিল সাথে,… Read More

নতুন জীবন

এখন তোমার নতুন এক জীবন। তোমার গোছানো ফ্ল্যাট – তোমারেই ভুবন। এখন তুমি তো দিব্যি রান্না করছো। আমি যখন ডাকতাম তোমায় – আমাদের ফ্ল্যাট এর রান্নাঘরে, কি বিরক্তি ই না তুমি প্রকাশ করেছো। অথচ দেখো আজ আমি নেই তোমার পাশে, সব কাজ ই করছো শুধু নিজের সাথে। আচ্ছা এখনো কি তুমি অফিস যাওয়ার আগে ঐভাবে… Read More

শিল্পী

শিল্পীরা বোধ হয় বড্ড অভিমানী, একরাশ বুকভরা বেদনা নিয়ে তারা সত্যিই ধনী। আশেপাশের মানুষ কি তাদের বোঝে? আর না বুঝলেও শিল্পীরা কি তাদের পরোয়া করে ? শিল্পীরা বাস্তবের ছায়াতে কল্পনার পথে চলে, তার পথের সাথী ও কি তার মনের কথা বোঝে ? শিল্পীরা বড্ড আনমনা । নিজের মধ্যেই চেপে রাখে যন্ত্রণা। দুনিয়া টাই বড্ড স্বার্থপর,… Read More

হারিয়ে গেছি আমি

আজ তোমরা আমায় ভুলে গিয়েছো আর আমায় বুঝিয়ে দিয়েছো- তোমরা শুধু নতুনের সাথেই আছো। অক্ষর দিয়ে সুন্দর বাক্য বানানো, আজ তোমাদের কাছে শুধুই ন্যাকামো। তাইতো একটা পোস্টকার্ড কেও তোমরা নির্মূল করেছো। আমার ডাকঘরে আজ শুধুই শূন্যতা- আর দুর্দশা নেমে এলো পোস্টম্যানদের । স্মার্টফোনের পাশে তাল দিয়ে চলার, আমার নাকি নেই কোনো যোগ্যতা !

চিঠি

  অসংখ্য অক্ষর দিয়ে ছোট্ট ছোট্ট শব্দ থেকে সুন্দর সুন্দর বাক্য বানিয়ে, রচনা হয় আমাকে। রকম রকম অনুভূতির স্পন্দন আমার শিরায় শিরায়- কখনো তীব্র আঘাতের কম্পন কিংবা আনন্দের বিজয়- ধ্বনি আমার রক্তে মিশে, কখনো অক্ষর গুলোর মাঝে ধনী গরিব নির্বিশেষে- হাসি কান্নার ছবি ভাসে। আমার অক্ষর দিয়ে সুন্দরভাবে দিই সাজিয়ে, অনুভূতি প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। এক… Read More

চল যাই কল্পনার স্রোতে

চল যাই কল্পনার স্রোতে তুই আর আমি ভেসে ভেসে। লাগুক না হাওয়া কানে কানে- আজ কথা হবে শুধু গানে গানে। তুই আর আমি গোধূলিবেলাতে- হারিয়ে যাই মধুর স্বপ্নতে। নক্ষত্রখচিত আকাশে পূর্ণিমার আলোতে চল হারিয়ে যাই ঘুমের জগতে। সকালের সূর্যালোকে ঘুম ভাঙ্গলে দুজন দেখবো দুজনকে। বাস্তবের কঠিন ছোঁয়াতে আবার ডুবে যাবো কাজেতে। মনে এঁকে রাখবো পরবর্তী… Read More

রাস্তা

    আমার জন্মের ইতিহাস যা সবার অজানা আজ উজাড় করে দেব সেই তথ্য খানা। শুরুতে শুধুই গাছ গাছড়া তে ভর্তি চারিদিক মানব সভ্যতা ছড়িয়ে পড়লো এদিক ওদিক। ব্যাস ,শুরু হয়ে গেলো তোড়জোড় চারিদিক শুধু গাছ কাটার ভিড়। শুরু হলো নতুন নতুন চিন্তা ভাবনা সকল মানুষের পরস্পর এর সাথে যোগাযোগ এর বাসনা। লাইন দিয়ে শুধু… Read More

মা এর প্রতিশ্রুতি

সোনা তোমায় দিলাম কথা দূর করবো তোমার ছোট্ট ছোট্ট ব্যথা। ছেড়ে দেব চাকরিটা তোমায় আমায় নিয়ে জমবে এবার সংসারটা। এবার শুধু তোমায় আর আমায় মিলে সারাক্ষণ মাতব পুতুল খেলায়। থাক না তোমার বাবা অফিসের কাজে এদিক ওদিকে ব্যস্ত শুধু যাতায়াতে। আমি তো আছি সবসময় তোমার কাছাকাছি।

ওরা

ট্রাফিক সিগন্যাল এ বাস মাঝ রাস্তায় থেমে – সকাল ৯টাই অফিস যাওয়ার তাড়া ;ব্যস্ততা সবারই জীবনে , শুধু ওরা বাদে ,বাস অটো খুব দামি গাড়ির ভিড় এই অবস্থায় রাস্তা ক্রস হাওয়া মুশকিল যে কারো – শুধু ওরা বাদে। তুমি বাবু ,তোমার ৪ চাকার গাড়ীতে বসে – তোমার স্ত্রীর পাশে ,অফিস যাওয়ার কারণে। তোমার সিগারেট তোমার… Read More

গুরুদংমার লেক

    ১ সৌন্দর্যের প্রতিযোগিতায় তোমার নাম শীর্ষে, তুমি সবার ওপরে নামে  আর যশ এ। বৈশাখ ,জ্যেষ্ঠ এ কিংবা কার্তিক অঘ্রানে ভ্ৰমণকারীরা তোমার মনে গর্ব আনে। তুমি এই প্রসন্নতাই আরো সুন্দর হয়ে ওঠো, চারিদিকে নীল আভা ছড়াও।  আকাশ নীল,পাহাড় কালচে সবুজ আর মধ্যখানে – পাহাড়গুলো বরফের আচ্ছাদনে। শুধু ই কি তাই ? বিচ্ছিন্নভাবে পড়ে থাকা নুড়ি পাথরগুলো ব্যস্ত হয়ে পড়ে… Read More

স্মৃতি রোমন্থন

চলো ছন্দে ছন্দে লিখি, লিখার শব্দে ভাসি, ভাসতে ভাসতে ছোটবেলার নৌকো ধরি। নৌকোয় চেপে ফেলে আসা অতীতে যাই, আরো কুড়িটা বছর পিছিয়ে যাই , অতীতের ফেলে আসা সৌন্দর্যে নিজেদের রাঙ্গায়। বিকেলের মলিন রোদে কিৎ কিৎ খেলবো, কিংবা বালির স্তুপে কাঠি লুকবো, কিংবা মাংস চুরি খেলা খেলবো। দুপুরে স্কুলের টিফিন সময়ে, পাড়ি দেব পাশের পুকুর পাড়ে, পা… Read More

লিখাচোর

সুযোগ পেলেই লিখতে বসি, কাজে দিই ফাঁকি । মনটা শুধু সময় খোঁজে, লিখবো কখন কাজের ফাঁকে ।   সবার মন চুরি করে রাখবো সযতনে, সেসব কিছু ফুটিয়ে তুলবো আমার কলমে। রাস্তার ধারের আগাছাগুলো – দেখেও তোমরা দেখো না, তাদের সাথে আমার লিখার কথা গুলো- শুনে হিংসা যেন করো না।   চুরি করবো তোমার সব দুঃখ, লিখাতে… Read More

সময় আর লিখা

আর কোনো কবিতা নয় কোনো লেখা নয়, এইভাবেই সময়টা শুধু হয় নয়ছয়।  লিখা তুমি থেকো শুধু মনের মধ্যে ,এস না বাহিরে – খালি আমার মন টাকে বিব্রত করো বারে বারে।  তুমি বুঝে নিও তোমায় নিয়ে থাকলে , টাকা কড়ি কোনোটাই নাহি মিলে।  লিখার নেই কোনো দাম আমার এই ব্যস্ত জীবনে।  তোমায় নিয়ে থাকলে সংসার চলিবে… Read More

মা -১

এই যে সেদিন জন্ম নিলাম আমিই সেই মেয়েটা, জানুয়ারী মাসের পনেরো ছিল তারিখটা। সাল টা ছিল 2013,সবে যখন সাতদিন গড়ালো, আমার না বোঝা আওয়াজে ঘরটা ভরে উঠলো। তিনটে মাস মায়ের সাথে কাটলো আধো আধো বুলিতে, সমস্ত ব্যথা সেরে যেত এক নিমেষে মায়ের ছোঁয়াতে। যদি জানতেম তিনটে মাসের পর সব যাবে বদলে, যদি জানতেম তিনটে মাস পর আমার… Read More